সর্বশেষ

লন্ডনে সংগীত উৎসবের শেষ অধিবেশন শনিবার

109

ভারতীয় উপমহাদেশের বাইরে বাংলা সংগীতের অন্যতম প্রধান আসর সৌধ বাংলা সংগীত উৎসবের সমাপনী অধিবেশন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ব্রিকলেনের কবি নজরুল সেন্টারে আগামী শনিবার (১২ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাতটায়।

সপ্তমবারের মতো আয়োজিত এই উৎসব এ বছর শুরু হয় পূর্ব লন্ডনের পপলার ইউনিয়নে। এতে সংগীত পরিবেশন করেন বিলেতের প্রখ্যাত রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী ড. ইমতিয়াজ আহমেদ ও উপশাস্ত্রীয় শিল্পী রিক্তা মুখার্জি। গত ২৯ সেপ্টেম্বর উৎসবের দ্বিতীয় অধিবেশনে বাংলা গানের বিভিন্ন বর্গের পরিবেশনা দিয়ে রিচমিক্স মঞ্চে দর্শকদের পূর্বাপর বিভোর করে রাখেন প্রতীচ্যে হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীতের শীর্ষ দূত বিদুষী চন্দ্রা চক্রবর্তী।

এতে লোকগানের সংক্ষিপ্ত উপস্থাপনা নিয়ে আসেন সুফি আমির মোহাম্মদ। বাংলা গানের মধ্যযুগ এবং এর পূর্ববর্তী, পরবর্তী কবিতা পাঠ করেন শ্রেষ্ঠা মুখার্জি ও মানস চৌধুরী। গানের অর্থদ্যোতনার সঙ্গে সংগতি রেখে পাবলো নেরুদা, মীর তকি মীর ও লোরকার কবিতা থেকে পাঠ করেন এরিক শিলিন্ডার।

এবারের সপ্তম বাংলা সংগীত উৎসবের সমাপনী দিনে থাকছে কবির লড়াইয়ের এক অভিনব পরিবেশনা। গ্রামবাংলায় একসময় অত্যন্ত জনপ্রিয় এই সংগীত–ঐতিহ্য এখন বিলুপ্তির পথে। ঠিক সে সময় এই মহান ধারাকে আরও আন্তর্জাতিক করে তোলার উদ্দেশ্যেই এই প্রয়াস নেওয়া হয়েছে বলে জানান আয়োজকেরা।

এতে শরীরী প্রেম ও প্লাটোনিক প্রেমের পক্ষে–বিপক্ষে কবিতা ও গানে এক অভূতপূর্ব লড়াইয়ে অংশ নেবেন বিবিসি স্লাম চ্যাম্পিয়ন কবি ড. ডেভিড লি মরগ্যান ও কবি টি এম আহমেদ কায়সার। বাংলা লোকগান ধর্ম–দর্শন, প্রাচীন শাস্ত্র ইত্যাদি দিয়ে অনুভূতিপ্রধান প্রেমের পক্ষে কায়সার গানে গানে যুক্তি উপস্থাপন করলে ডেভিড ইংলিশ কাউন্টি গান, লোকগান এমনকি নিজের লেখা কবিতা দিয়ে আধুনিক মন ও মনস্তত্ত্ব ব্যাখ্যা করে শরীরী ভালোবাসার পক্ষে এই পোয়েটিক ডিসকোর্সে অবতীর্ণ হবেন।

এ ছাড়া আরও সংগীত পরিবেশন করবেন তরুণ মেধাবী উপশাস্ত্রীয় শিল্পী অমিত দে ও জাতীয় পুরস্কার বিজয়ী লালনগীতিশিল্পী রওশন জাহান সিমি।

ব্রিটেনের মূলধারার পত্রপত্রিকায় এই সংবাদ বেশ ফলাও করে ছাপা হয়েছে।

আরও সংবাদ
error: Content is protected !!