সর্বশেষ

লেখক-সম্পাদক আনোয়ার শাহজাহানের জন্মদিন

117

প্রবাস ডেস্ক –


লেখক, সাংবাদিক, সংগঠক এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আনোয়ার শাহজাহানের ৪৭ তম জন্মবার্ষিকী সোমবার (১৬ নভেম্বর)। ১৯৭৩ সালের এই দিনে তিনি সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার রায়গড় গ্রামে জন্মগ্রহন করেন।

আনোয়ার শাহজাহান কৈশোর থেকেই সাংবাদিকতা পেশায় যুক্ত হন। শুরুতে দৈনিক খবর এবং দৈনিক সিলেট বাণী পত্রিকায় কাজ করেন। ১৯৯২ তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয় জনতার মিছিল নামক একটি মাসিক পত্রিকা। ১৯৯৪ সালে গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তিনি গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাবের ভূমি ও ভবনদাতা। ১৯৯৪ সালে গোলাপগঞ্জে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত বইমেলা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিবও ছিলেন তিনি।

আনোয়ার শাহজাহান ১৯৯৫ সাল থেকে ব্রিটেন প্রবাসী। ১৯৯৫ সালে তিনি প্রবাস পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৯৬ সালে তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয় মাসিক লন্ডন বিচিত্রা। ২০০২ সালে অনলাইন সংবাদপত্র বাংলালিংক ডটকম এর সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৯ সাল থেকে তিনি আমাদের প্রতিদিন অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি ২০১৮ সাল থেকে অনলাইন টিভি জালালাবাদ টিভির সিইও হিসেবে দায়িত্বে আছেন।

আনোয়ার শাহজাহান একজন লেখক হিসেবেও সমাদৃত। স্কুলের শিক্ষার্থী থাকাকালেই লেখালেখি শুরু করেন। এ পর্যন্ত তার প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৬টি। ১৯৯৬ সালে গোলাপগঞ্জের প্রথমলিখিত ইতিহাসগ্রন্হ “গোলাপগঞ্জের ইতিহাস ও ঐতিহ্য” প্রকাশ করেন। একই সালে প্রকাশিত হয় “বিলাতের দিনগুলি ও অন্যান্য প্রসঙ্গ”। ২০১৬ সালে প্রকাশ করেন “স্বাধীনতাযুদ্ধে খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা”। ৭৫৬ পৃষ্ঠায় দুটি খণ্ডে প্রকাশিত মুক্তিযুদ্ধের অনন্য দলিল এ বইটি মুক্তিযুদ্ধের আক্ষরিক দলিল হিসেবে জাতীয় ভাবে প্রসংশিত হয়েছে।

২০১৮ সালে সিলেট বিভাগে মুক্তিযুদ্ধের ৭৮টি স্মৃতিবিজড়িত স্থান ও সৌধ নির্মাণ এবং স্থাপত্যকর্মের বর্ণনা সহ একাত্তরে সংগঠিত মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবহুল ইতিহাস নিয়ে প্রকাশ করেন “সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত স্থান ও সৌধ”। একই  বছর প্রথমবারের মত সিলেট বিভাগের ৪৭জন রাষ্ট্রীয় খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাহসিকতার লোমহর্ষক বিবরণ নিয়ে প্রথম বারের মত প্রকাশিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধে সিলেটের গৌরবময় ইতিহাসগ্রন্থ সিলেটের খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা।  ২০২০ সালে বইটির ইংরেজি সংস্করণ  Gallantry award recipient freedom fighters of Sylhet প্রকাশিত হয়।

সাহিত্য সাংবাদিকতার পাশাপাশি একজন সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী হিসাবেও আনোয়ার শাহজাহান দেশ-বিদেশে পরিচিত। ২০০৯ সালে গোলাপগঞ্জের ধারাবহরে প্রতিষ্ঠা করেন আনোয়ার শাহজাহান প্রাথমিক বিদ্যালয়। তিনি লক্ষিপাশা মুরাদিয়া ছবুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্যসহ দেশ-বিদেশে বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিকদের সংগঠনের সাথে জড়িত। সাহিত্য, সাংবাদিকতা ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে তাঁর অবদানের জন্য পেয়েছেন নানা ধরনের স্বীকৃতি, সম্মাননা ও সংবর্ধনা। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত ও চার সন্তানের জনক।

শুভ জন্মদিনে আনোয়ার শাহজাহানের প্রতি রইলো প্রবাসের নিউজের পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

আরও সংবাদ
error: Content is protected !!