সর্বশেষ

ফেসবুক স্ক্রীণ শট

136
বঙ্গবন্ধুর ২৫ মার্চের মধ্যরাতের (মুলত ২৬ মার্চের প্রথম প্রহর) স্বাধীনতার লিখিত ঘোষনাটি পুলিশ আর ইপিআর বাহিনীর অয়ারলেস-টেলিগ্রামের মাধ্যমে সারা দেশে ছড়িয়ে দেবার ঘটনাটি আমার স্মৃতির ভেতরে এখনও দোলা দেয়। এটির সাথে আমার মরহুম আব্বার স্মৃতিও মিলেমিশে এক হয়ে আছে।
আমি তখন ষস্ঠ শ্রেণীর ছাত্র, ২৬ মার্চ দুপুরের দিকে প্রথম খবরটি পাই আমার আব্বা এম এ কবীরের কাছ্ থেকে। আব্বা তখন জামালপুরের আনসার এডজুট্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি অফিস থেকে বাসায় ফিরে আম্মার কাছে বলছিলেন, “হেলেন, শেখ সাহেব স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়েছেন। গোছগাছ শুরু করো। ওদেরকে নিয়ে ওদের নানির বাড়ি চলে যাও। যুদ্ধ শুরু হয়ে যাবে। ইয়াহিয়া বঙ্গবন্ধুকে এরেস্ট করেছে।”
আব্বা আরও জানালেন, টেলিগ্রাম অয়ারলেসের মাধ্যমে খবরটি এসেছে। মনে পড়ে, আব্বা একাই থেকে গেলেন জামালপুর শহরে, আর আমরা পাচ ভাইবোনসহ আম্মাকে নিয়ে রিক্সায় করে দশ বারো মাইল দূরের নান্দিনা পলাশতলা গ্রামে নানির বাড়িতে স্থানান্তরিত হলাম।
পরে জেনেছি, আব্বা তার দ্বায়িত্ব্বে রক্ষিত সকল রাইফেল আনসারদের কাঁধে তুলে দিয়েছিলেন পাক সেনাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্যে। আব্বা ভালো করে জানতেন, বঙ্গবন্ধুই বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা ও নতুন প্রধানমন্ত্রী। কাজেই তাঁর স্বাধীনতা ঘোষনা ও একইসাথে শত্রুমুক্ত করতে যুদ্ধে নামার নির্দেশ পালনের যথাপোযুক্ত সময় তো ছিল তখনই ! তাই পুলিশ, ইপিআর ও আনসারের সম্মিলিত বাহিনীর একটি গ্রুপ নিয়ে ঢাকা-টাঙ্গাইল-জামালপুর মহাসড়ক ধরে জ্বালাও-পোড়াও করে এগিয়ে আসা পাক সেনাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ তৈরি করতে মধুপুর পর্যন্ত গিয়েছিলেন আব্বা। এসব এখন সোনাঝরা স্মৃতি।
কাজেই বঙ্গবন্ধুর ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরের স্বাধীনতার ঘোষনাটি সেই সময় প্রতিটি বাঙালির ঘরেই পৌঁছে গিয়েছিল বিদ্যুতের বেগে, যেমনটি জেনেছিলাম বালক বয়েসে আমি নিজেও এবং এটি দিবালোকের মতোই সত্য। অথচ পরবর্তিতে মেজর পদের কোন বাঙালি অফিসারকে বেতার কেন্দ্রে ডেকে নিয়ে তাকে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষনাটি পাঠ করানোর ঘটনাটিকে এদেশের স্বাধীনতা বিরোধী চক্র মিথ্যা ইতিহাস তৈরির কি জঘন্য অপচেস্টাই না করেছিল এই বাংলাদেশে ! আমাদের মনে রাখতে হবে, মিথ্যা দিয়ে সত্যকে কখনও চাপা দেয়া যায় না। সত্যের জয় এভাবেই চির জাগরুক থাকুক। জয় বাংলা।পরম করুনাময় আল্লাহ তায়ালা আমাদের সহায় হউন।
May be an image of 1 person and text
Palash Debnath, Shakila Akter and 8 others
6 Shares
Like

 

Comment
Share

Comments

আরও সংবাদ
error: Content is protected !!